Header Ads

ক্ষুব্ধ ট্রাম্প! এ্যাটর্নি জেনারেল বরখাস্ত, ডেমোক্র্যাটদের হুমকি, হোয়াইট হাউসে সিএনএন সাংবাদিক নিষিদ্ধ


ক্ষুব্ধ ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হঠাত্ করে ভীষণ ক্ষুব্দ হয়ে উঠেছেন। আকস্মিকভাবে তার এটর্নি জেনারেলকে বরখাস্ত ছাড়াও হঠাত্ করে হোয়াইট হাউসে সিএনএনের সাংবাদিককে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছেন। এছাড়া মার্কিন নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের তদন্ত নিয়ে ডেমোক্র্যাটদেরও হুমকি দিয়েছেন তিনি।

বিবিসি জানায়, এটর্নি জেনারেলকে বরখাস্ত করার পর বুধবার এক টুইটে ট্রাম্প লেখেন, ‘ভালো কাজের জন্য অ্যাটর্নি জেনারেল জেফ সেশন্সকে ধন্যবাদ জানিয়েছি আমি এবং তার শুভকমনা করি!’ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার প্রভাব বিস্তার নিয়ে চলা তদন্ত থেকে সেশন্স নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার পর থেকে বারবার তার শীর্ষ আইন কর্মকর্তার সমালোচনা করে আসছিলেন ট্রাম্প। ট্রাম্প জানিয়েছেন, ভারপ্রাপ্ত অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন সেশন্সের চিফ অব স্টাফ ম্যাথু হুইটেকার। এ পদে স্থায়ী নিয়োগ পরে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। আলাবামার সাবেক সিনেটর সেশন্স  পদ ছাড়ার সিদ্ধান্তটি যে তার নিজের ছিল না তা পরিষ্কার করেছেন।

তারিখবিহীন এক চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘প্রিয় প্রেসিডেন্ট মহোদয়, আপনার অনুরোধে আমি আমার পদত্যাগপত্র জমা দিচ্ছি।’ হোয়াইট হাউসের কর্মকর্তাদের ভাষ্য অনুযায়ী, বুধবার মধ্যবর্তী নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের আগে  চিফ অব স্টাফ জন কেলি সেশন্সকে ডেকে পাঠিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট।

অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম সিএনএনের সাংবাদিক জিম অ্যাকোস্টাকে হোয়াইট হাউসে নিষিদ্ধ করেছেন ট্রাম্প। সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্পের সঙ্গে বিতর্কের জেরে হোয়াইট হাউসে তার পাস বাতিল করা হয়। পরবর্তী নোটিশ না পাওয়া পর্যন্ত তিনি প্রেসিডেন্টের দফতরে প্রবেশ করতে পারবেন না। বুধবার আমেরিকার মধ্যবর্তী নির্বাচনের সার্বিক বিষয় নিয়ে ট্রাম্পের সংবাদ সম্মেলনে জিম অ্যাকোস্টা অভিবাসী ইস্যুতে ট্রাম্পকে প্রশ্ন করেন। এ প্রশ্ন থেকেই দুজনের মধ্যে তর্কাতর্কির সূত্রপাত হয়। তবে হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি সারাহ স্যান্ডার্স হাকাবি দাবি করেছেন, ‘ওই সাংবাদিক একজন নারীর গায়ে হাত রেখেছিলেন, তাই এ ব্যাবস্থা নেয়া হয়েছে। হোয়াইট হাউস কখনও এ ধরনের আচরণ বরদাশত করবে না।’

পাস বাতিলের বিষয়টি জানিয়ে জিম অ্যাকোস্টাও টুইট করেছেন। নারীর গায়ে হাত রাখার অভিযোগ তিনি সরাসরি নাকচ করেছেন। সংবাদ সম্মেলনের ভিডিওটি অনলাইনে মুহুর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে দেখা গেছে- জিম অ্যাকোস্টা অভিবাসী ইস্যুতে ট্রাম্পকে প্রশ্ন করলে ট্রাম্প বলছেন, ‘আমাকে দেশ চালাতে দিন, আপনি সিএনএন চালান এবং আপনি যদি এটি করতে পারেন তাহলে আপনার মানদণ্ড অনেক উপরে উঠবে।’ এরপর অ্যাকোস্টা আরেকটি প্রশ্ন করার ইচ্ছা পোষণ করলে ট্রাম্প বলেন, ‘যথেষ্ট হয়েছে।’ এরপর অ্যাকোস্টার হাত থেকে মাইক্রোফোন কেড়ে নেয়ার নির্দেশ দেন ট্রাম্প। এ সময় ট্রাম্প তাকে ‘উদ্ধত’ ও ‘ভয়ঙ্কর’ ব্যক্তি আখ্যা দিয়ে বলেন, সিএনএন-এর হয়ে আপনার কাজ করা উচিত নয়।

রাশিয়া তদন্ত ‘হুমকির মুখে

এটর্নি জেনারেল বরখাস্ত হওয়ায় যুক্তরাষ্ট্রে ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ নিয়ে তদন্ত হুমকির মুখে পড়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন শীর্ষ ডেমোক্র্যাটরা। কংগ্রেসে প্রতিনিধি পরিষদের নেতৃস্থানীয় ডেমোক্র্যাট ন্যান্সি পেলোসি সেশন্সকে বরখাস্ত করার পদক্ষেপকে তদন্ত বাধাগ্রস্ত করার ‘সুষ্পষ্ট প্রচেষ্টা’ বলে উল্লেখ করেছেন। সেশন্সের উত্তরসূরি ম্যাথিউ উইটেকার এ তদন্তের সমালোচনা করেছেন। মধ্যবর্তী নির্বাচনে প্রতিনিধি পরিষদে জয় পাওয়া ডেমোক্র্যাটরা এ তদন্তকে সুরক্ষিত রাখার অঙ্গীকার করেছেন। কয়েকজন রিপাবলিকানও এ তদন্তের ভবিষ্যত্ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

No comments

Note: Only a member of this blog may post a comment.

Powered by Blogger.